রেডমি গো নাকি নোকিয়া ১, কোনটি বেস্ট ?
Share:

রেডমি গো নাকি নোকিয়া ১, কোনটি বেস্ট ?

রেডমি গো নাকি নোকিয়া ১

গুগল সেইসব ইউজারদের কথা মাথায় রেখে অ্যান্ড্রয়েড গো ভার্সন লঞ্চ করেছিলো যারা স্মার্টফোন ব‍্যবহার করতে চাইলেও বেশি খরচ করতে রাজি নন বা সামর্থ নেই। অ্যান্ড্রয়েড গোর সবচেয়ে বড় বিশেষত্ব এই ফোনে অল্প র‍্যাম ও ছোট ইন্টারনাল মেমরি থাকা সত্ত্বেও এই ফোন খুব স্মুথলি কাজ করে।

গত মাসে শাওমি তাদের অ্যান্ড্রয়েড গোযুক্ত স্মার্টফোন রেডমি গো লঞ্চ করে, নোকিয়ার অ্যান্ড্রয়েড গো ফোন নোকিয়া ১ কে যার কড়া প্রতিদ্বন্দ্বী মনে করা হচ্ছে । দামের দিক থেকে নোকিয়া ১, রেডমি গোর থেকে দামি হলেও গত সপ্তাহের প্রাইস কাটের পর এখন নোকিয়া ১ বেশি সস্তা হয়ে গেছে।

যদি আপনি অ্যান্ড্রয়েড গো স্মার্টফোন কিনতে চান তবে আপনি হয়তো কনফিউজ হয়ে আছেন যে কোন ফোনটি বেশি ভালো হবে । আমরা আজ দুটি ফোনের ফিচার ও স্পেসিফিকেশনের তুলনা করতে চলেছি যা পড়ে আপনারা বুঝতে পারবেন নোকিয়া ১ ও রেডমি গোর মধ্যে কোন ফোনটি বেস্ট।

ডিজাইন

নোকিয়া ১ ও রেডমি গো দুটি ফোন‌ই পুরোনো ডিজাইনে পেশ করা হয়েছে যার মধ্যে বেজল লেস ডিসপ্লে বা নচ কিছুই নেই। রেডমি গো স্কোয়ার শেপের, তবে নোকিয়া ১ এর চারদিক কার্ভড ।

রেডমি গো নাকি নোকিয়া ১

দুটি ফোনেই ডিসপ্লের ওপর দেওয়া বডি পার্টে সেলফি ক‍্যামেরা ও স্পীকার দেওয়া হয়েছে এবং নিচের বডি পার্টে নেভিগেশন বাটন দেওয়া হয়েছে।

রেডমি গোর ব‍্যাক প‍্যানেলে ওপরে বাঁদিক ঘেঁষে সিঙ্গেল রেয়ার ক‍্যামেরা সেট‌আপ দেওয়া হয়েছে এবং নোকিয়া ১ এর রেয়ার ক‍্যামেরা সেট‌আপ ব‍্যাক প‍্যানেলে মাঝখানে অবস্থিত। ডিজাইন ও লুকের দিক থেকে নোকিয়া ১ শাওমি রেডমি গোর তুলনায় বেশি আকর্ষণীয়।

ডিসপ্লে

নোকিয়া ১ ফোনটি কোম্পানির পক্ষ থেকে ৪.৫ ইঞ্চির ডব্লিউভিজিএ আইপিএস ফুল এইচডি ডিসপ্লের সঙ্গে পেশ করা হয়েছে। স্ক্রিন সুরক্ষিত রাখার জন্য এতে গোরিলা গ্লাস ৩ এর প্রোটেকশন দেওয়া হয়েছে।

রেডমি গো নাকি নোকিয়া ১

শাওমি রেডমি গোতে ৭২০ পিক্সেল রেজলিউশন সাপোর্টেড ৫.০ ইঞ্চির এইচডি ডিসপ্লে আছে। স্ক্রিনের সাইজের দিক থেকে রেডমি গো নোকিয়া ১ এর থেকে এগিয়ে।

র‍্যাম ও স্টোরেজ

নোকিয়া ১ ফোনে ১ জিবি র‍্যাম দেওয়া হয়েছে । এই ফোনে 8 জিবি ইন্টারনাল মেমরি দেওয়া হয়েছে যা মাইক্রোএসডি কার্ডের সাহায্যে ১২৮ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

শাওমি রেডমি গোতেও কোম্পানি ১ জিবি র‍্যাম ও ৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ দিয়েছে। এই ফোনের মেমরিও ১২৮ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যায়।

র‍্যাম ও স্টোরেজ এর দিক থেকে ফোন দুইটিতে কোন পার্থক্য নেই।

ফোটোগ্ৰাফি সেগমেন্ট

নোকিয়া ১ এর ব‍্যাক প‍্যানেলে ৫ মেগাপিক্সেলের রেয়ার ক‍্যামেরা দেওয়া হয়েছে এবং সেলফির জন্য এতে ২ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক‍্যামেরা আছে।

অপরদিকে, শাওমি রেডমি গোতে ব‍্যাক প‍্যানেলে 8 মেগাপিক্সেলের রেয়ার ক‍্যামেরা ও সেলফির জন্য ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক‍্যামেরা আছে।

প্রসেসর ও চিপসেট

নোকিয়া ১ ফোনটি ১.১ গিগাহার্টস ক্লক স্পীডযুক্ত কোয়াডকোর প্রসেসরের সঙ্গে পেশ করা হয়েছে যা মিডিয়াটেক এমটি ৬৭৩৭ এম চিপসেটে রান করে।

শাওমি রেডমি গো ১.৪ গিগাহার্টস ক্লক স্পীডযুক্ত কোয়াডকোর প্রসেসরের সঙ্গে কোয়ালকম স্ন‍্যাপড্রাগন ৪২৫ চিপসেটে রান করে।

রেডমি গো নাকি নোকিয়া ১

ব‍্যাটারী

নোকিয়া ১ এ কোম্পানির পক্ষ থেকে ২১৫০ এম‌এএইচের ব‍্যাটারী দেওয়া হয়েছে।

অপরদিকে শাওমি রেডমি গোতে পাওয়ার ব‍্যাক‌আপের জন্য ৩০০০ এম‌এএইচ ব‍্যাটারী আছে।

সিদ্ধান্ত

দামের দিক থেকে নোকিয়া ১ আজকের দিনে দাঁড়িয়ে রেডমি গোর থেকে ১০০০ টাকা সস্তা। কিন্তু স্পেসিফিকেশনের দিক থেকে রেডমি গো নোকিয়া ১ এর থেকে এগিয়ে।

লুকের দিক থেকে নোকিয়া ১ আকর্ষণীয় হলেও চিপসেট, ক‍্যামেরা ও ব‍্যাটারীর দিক থেকে রেডমি গো যথেষ্ট অ্যাডভান্স। তাই ১০০০ টাকা বেশি খরচ করে নোকিয়া ১ এর বদলে রেডমি গো নেওয়া বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

Share:
লিখেছেন
শামীম রেজা
Join the discussion

শামীম রেজা

কীবোর্ডের "কী" থেকে শুরু করে মোবাইলের "হ‍্যালো" পর্যন্ত সবকিছুর মধ্যেই টেকনোলজি আছে। এই টেকনোলজির প্রতি ভালোবাসা থেকেই টেকনোলজি বুঝে সেটা নিয়ে লেখা শুরু।

Advertisement